শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৬:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
শিরোনাম
সুনামগঞ্জ ৩ নির্বাচনী এলাকা আলীকদমে মহিলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত। নরসিংদী জেলার পলাশের আওয়ামীলীগের দুর্গ আনোয়ার আশরাফ খান দীলিপ, সৈয়দ জাবেদ হোসেন বান্দরবানের লামায় যত্রতত্র মাটি কাটার মহোৎসব চলছে :প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন এলাকাবাসী। নরসিংদীর মাধবদীতে ককটেল বিস্ফোরণ করে এক রাতে দুই বাড়িতে ডাকাতি সভাপতি পদে এড. আবদুল বাছেদ ও এড. মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ মিঞা সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত ইউনিটি ক্লাব ভোগতেরার কমিটি অনুমোদন ; কেশবপুরে পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের মহিলা ভোটারদের সাথে, পৌর কাউন্সিলর শেখ এবাদত সিদ্দিক বিপুলের মতবিনিময় পুলিশ সুপার প্রলয় কুমারের করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থতা ও বিশ্ব মঙ্গল কামনায় পলাশে সনাতন সম্প্রদায়ের প্রার্থনা। জুড়ী থানার পুলিশের উদ্যোগে করোনাভাইরাসের ২য় ঢেউ মোকাবেলায়, আজ থেকে মাস্ক সাপ্তাহ শুরু।

পুলিশি মিথ্যা মাদক মামলার স্বীকার বাবুগঞ্জ উপজেলা সন্তান ছাত্রলীগ কর্মী মিলন ইসলাম তিব্র

প্রতিবেদকের নাম / ১১৩৫ শেয়ার
প্রকাশিত : সোমবার, ২৭ জুলাই, ২০২০, ৫:৫২ পূর্বাহ্ন

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

বরিশাল বাবুগঞ্জ এর সন্তান ও ছাত্রলীগ এর একজন সক্রিয় কর্মী মিলন ইসলাম তিব্র পুলিশি মিথ্যা মামলার শিকার হয়ে বর্তমান জেলে।
গত ২০/০৭/২০২০ তারিখে ৮:০০ ঘটিকায় বাবুগঞ্জ বাজার সংলগ্ন,। , বাবুগঞ্জ থানা পুলিশ এস আই ফজলুল ও এস আই সিহাব কর্তৃক একটি গ্রেফতারের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আটক করা হয় মোঃ মিলন কবিরাজ (২০) কে। জানা যায়, আটক পূর্বে অভিযুক্ত মোঃ মিলন ইসলাম তিব্র ও মোঃ রুপম কাজী (২০) কে তল্লাশি করা হয়। তাদের সাথে অনৈতিক কিছু না পাওয়া সত্ত্বেও তাদের ছেড়ে না দিয়ে অপেক্ষা করতে বলা হয়। অতঃপর এস আই ফজলুল ‘ এস আই সিহাব এর সহযোগিতা নিয়ে, এস আই ফজলুল নিজ পকেট থেকে সামান্য গাঁজা বের করে একটি টিস্যুতে নেয়। অতঃপর এস আই ফজলুল হেটে অভিযুক্ত মিলন কবিরাজ এর পিছনে গিয়ে, এস আই ফজলুলের এর হাতে থাকা গাঁজাকে, অভিযুক্ত মিলন কবিরাজের বলে অভিযোগ করেন । অথচ সংগৃহীত সি সি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, এই দুই পুলিশ কর্মকর্তা তাদের নিজেদের পকেট থেকে গাঁজা দিয়ে সাধারণ ছাত্রদের আটক করে। অতপর মিলনের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে। গোপনীয় সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত মিলন কবিরাজ এর সাথে থাকা রুপম কাজী কে ৫০০০ টাকার বিনিময়ে ঘটনা স্থল থেকে ছেরে দেয়া হয়। এদ্বারা আজ ছাত্র সমাজ প্রশ্নবৃদ্ধ যে তারা কি আজ প্রশাসন এর কাছে সুরক্ষিত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ

পুরাতন সব সংবাদ

এক ক্লিকে বিভাগের খবর
ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ