বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১১:৫৩ পূর্বাহ্ন

বিরামপুরে সরকারী রাস্তায় নির্মিত অবৈধ প্রাচীর ভেঙ্গে দিলো প্রসাশন

হিলি প্রতিনিধি : / ৩২ শেয়ার
প্রকাশিত : সোমবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১, ৯:৫৫ অপরাহ্ন

হিলি প্রতিনিধি :: 
দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার কাটলা বাজারে সরকারী রাস্তা অবৈধ ভাবে দখল করে সেখানে নির্মিত ইটের প্রাচীর (পিলার) ভেঙ্গে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। আজ সোমবার বেলা ১১টায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহসিয়া তাবাসসুমের নেতৃত্বে অবৈধ্য ভাবে নির্মিত গেটটি ভেঙ্গে দেয়া হয়। গত দুইদিন আগে ১৯ ফেব্রুয়ারী শনিবার রাতে গেটটি নির্মান করে রাস্তার পাশে বসবাসকারী শাহানাজ পারভিন ও তার স্বামী মুকুল সরকারের লোকজন।

উপজেলা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহসিয়া তাবাসসুম জানান, যেখানে পাকা পিলার নির্মান করা হয়েছে সেটি সরকারী জায়গা। সেখানে অবৈধ্য ভাবে দখল করে ইট দিয়ে পিলার নির্মান করা হয়েছে। সেকারণে গেটটি ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, গত ১৯ ফেব্রুয়ারী শনিবার দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার কাটলা বাজারে রাতের আঁধারে সরকারী রাস্তা দখল করে পাকা গেট নির্মান করে রাস্তার পাশে বসবাসকারী শাহানাজ পারভিন ও তার স্বামী মুকুল সরকারের লোকজন। সরকারী রাস্তায় পাকা গেট নির্মানের প্রতিবাদ করায় তফিজ উদ্দিন, লিলি ও লাইলি বেগম নামের দুই নারীসহ তিনজনকে পিটিয়ে আহত করে অবৈধ্য ভাবে গেট নির্মানকারীরা। আহত অবস্থায় তাদের চিকিৎসার জন্য বিরামপুরে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে মারধরকারী অবৈধ্য দখলদার মুকুল সরকার উল্টো প্রতিবাদকারী ৫ জনের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনে থানায় একটি মামলা করে। সেই মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ লিলি ও লাইলি বেগম নামের দুই নারীকে আটক করে দিনাজপুর জেল হাজতে পাঠায়। পরে তারা আদালতের মাধ্যমে জামিনে মুক্ত হয়।

হাসপতালে চিকিৎসাধীন তফিজ উদ্দিন অভিযোগ করেন, সরকারী রাস্তা অবৈধ্য ভাবে দখলকরে মুকুল সরকার ও শাহানাজ পারভিনের লোকজন সেখানে রাতের বেলা ইট দিয়ে পিলার নির্মান করছিলো। আমরা সেখানে প্রতিবাদ করতে গেলে আমাদের মারধর করা হয়। উল্টো তারা আমাদের নামে থানায় মামলা দিয়ে আমার দুই বোনকে জেলহাজতে পাঠায়। আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

অন্যদিকে সরকারী জায়গা দখলকরে গেট নির্মানে প্রতিবাদ করায় মারধরের সিকার তফিজ উদ্দিনের বড়ভাই নাসির উদ্দিন বাদি হয়ে হামলাকারী ও অবৈধ্য দখলদার মুকুল সরকার ও শাহানাজ পারভীনসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে গত ২০ ফেব্রুয়ারী বিরামপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। এ মামলার আসামিরা আজ সোমবার কোটে আত্মসমর্পণ করে জামিন প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন দেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ সম্পর্কিত আরো সংবাদ

পুরাতন সব সংবাদ

SatSunMonTueWedThuFri
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
  12345
2728     
       
    123
45678910
       
    123
45678910
11121314151617
       
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
ব্রেকিং নিউজ
ব্রেকিং নিউজ